শুক্রবার বাংলাদেশে আসছেন ভারতের সেনাপ্রধান

তিনদিনের সরকারি সফরে শুক্রবার বাংলাদেশে আসছেন ভারতের সেনাপ্রধান বিপিন রাওয়াত। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভারত সফরের আগে প্রতিরক্ষা বিষয়ক চুক্তি  নিয়ে যখন চলছে নানা আলোচনা তখনই প্রথম বিদেশ সফরে বাংলাদেশে আসছেন তিনি। সফরকালে রাষ্ট্রপতি মো: আব্দুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে দেখা করবেন রাওয়াত। মতবিনিময় করবেন উর্দ্ধ তন সেনা কর্মকর্তাদেরসাথে।

ভারতীয় হাই কমিশন জানিয়েছে, দুই দেশের সশস্ত্র বাহিনীর ঊধ্বর্তন কর্মকর্তাদের মধ্যে চলমান সফর বিনিময়ের অংশ হিসেবে ভারতীয় সেনাপ্রধানের বাংলাদেশ সফর।

সর্বশেষ ২০১৫ সালের সেপ্টেম্বরে বাংলাদেশের সেনাপ্রধান ভারত সফরে গিয়েছিলেন। বিমান বাহিনী ও নৌ-বাহিনী প্রধানরাও ২০১৬ সালে ভারত সফর করেন। ভারতের বিমান বাহিনী এবং নৌ-বাহিনী প্রধানও ২০১৬ সালে বাংলাদেশ সফর করেন।

সম্পর্কের গুরুত্ব বিবেচনা করে গত ১ জানুয়ারি সেনাপ্রধানের দায়িত্ব নেওয়ার পর জেনারেল রাওয়াত তার আন্তর্জাতিক সফরের প্রথম গন্তব্য হিসেবে বাংলাদেশকে বেছে নিয়েছেন বলে হাইকমিশন জানায়। তার স্ত্রী মাধুলিকা রাওয়াত এবং চার সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল ঢাকায় আসছেন তার সফরসঙ্গী হিসেবে।

প্রতিনিধি দলটি রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করবে। এছাড়া ঊধ্বর্তন সেনা কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় করবেন তারা।

ঢাকার মিরপুরের ন্যাশনাল ডিফেন্স কলেজের শিক্ষার্থী কর্মকর্তাদের উদ্দেশে ভাষণও দেবেন ভারতীয় সেনাপ্রধান।

১৯৭১ সালে বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে মিত্র বাহিনীর হয়ে অংশ নিয়েছিলেন সেনা কর্মকর্তা রাওয়াত। তার নেতৃত্বাধীন ব্যাটালিয়ন বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চলে পীরগঞ্জ, ঘোড়াঘাট, গোবিন্দগঞ্জ, শাওলকান্দি, মহাস্থান সেতু এবং বগুড়ায় যুদ্ধে অংশ নেয়।

সফরের সময় ভারতীয় সেনাপ্রধান একাত্তরের ওই যুদ্ধক্ষেত্রগুলোর কয়েকটি ঘুরে দেখবেন বলে ভারতীয় হাই কমিশনের বিবৃতিতে জানানো হয়।

বাংলাদেশের পর ভারতের সেনাপ্রধান নেপাল সফরেও যাবেন। সেখানে তাকে দীর্ঘদিনের ঐতিহ্য অনুযায়ী নেপালের প্রেসিডেন্টের পক্ষ থেকে ‘নেপাল সেনাবাহিনীর জেনারেল’ এর সম্মানজনক উপাধিতে ভূষিত করা হবে।

দক্ষিন এশিয়ার দেশগুলোর আঞ্চলিক রাজনীতির পরাশক্তি ভারতের সেনা প্রধানে এই দুটি সফরকে বিশ্লেষকরা দেখছেন একটি গুরুত্বপূর্ন সফর হিসেবেই।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*


6 + 9 =