বন্যা দুর্গত এলাকায় খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হবে: প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

বন্যা দুর্গত এলাকায় খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হবে বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।  মনোবল না হারিয়ে সরকারের ওপর ভরসা রাখতে বন্যার্ত মানুষদের প্রতি আহবান জানিয়েছেন তিনি। গাইবান্ধার গোবিগঞ্জে ত্রাণ ও কৃষি উপকরণ বিতরণ অনুষ্ঠানে বক্তব্যে এই আহবান জানান শেখ হাসিনা।

তিনি বলেন, আবহাওয়ার পূর্বাভাসে আগাম বন্যার খবর সরকার জেনেছে। খাদ্যের অভাব যাতে না হয়, এ জন্য আগেই ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। একটি মানুষও যেন না খেয়ে কষ্ট না পায়, সেটাই সরকারের লক্ষ্য।

বন্যাদুর্গতদের মনোবল না হারানোর আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘জানবেন, সব সময় আপনাদের পাশে আছি।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘আপনাদের সেবা করাই আমাদের একমাত্র লক্ষ্য। সরকারে থাকি আর বিরোধী দলে থাকি, মানুষের বিপদে সব সময় আওয়ামী লীগ পাশে দাঁড়িয়েছে।’

বন্যায় যেসব স্কুল ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, সেগুলো মেরামত করা হবে বলে জানান প্রধানমন্ত্রী। যেসব শিক্ষার্থীর বইখাতা নষ্ট হয়েছে, তাদের আবার নতুন বইখাতা বিতরণ করা হবে বলে তিনি জানান।

শেখ হাসিনা বলেন, বন্যায় রাস্তাঘাট ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের সেগুলো মেরামতের ব্যবস্থা করছেন। শিগগিরই বন্যাদুর্গত এলাকায় রাস্তাঘাট ঠিক করা হবে বলে তিনি জানান।

বাংলাদেশের প্রতিটি মানুষ যেন সুন্দরভাবে বাঁচতে পারে, সেই লক্ষ্যে সরকার কাজ করে যাচ্ছে বলে জানান প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, যারা আগুন দিয়ে মানুষকে পুড়িয়ে মারে, তারা এ দেশের কল্যাণ করতে পারে না। ধ্বংস করতে পারে। তিনি বলেন, ‘গতবারের নির্বাচনে না গিয়ে বিএনপি ভুল করেছে। তারা গাইবান্ধা ও গোবিন্দগঞ্জে তাণ্ডব চালিয়েছে। এমপি লিটনকে হত্যা করেছে। আমরা রাস্তা বানাই, তারা নষ্ট করে।’

 

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*


two − one =